ক্যালোরিমিতির মূলনীতি (Principle of Calorimetry)

ক্যালোরিমিতির মূলনীতি

যদি বাইরে থেকে কোন তাপ না আসে এবং বাইরে কোন তাপ বেরিয়ে না যায়, তবে দুটি বিভিন্ন উষ্ণতার বস্তুকে পরস্পরের সংস্পর্শে রাখলে বস্তুদুটি তাপীয় সাম্যবস্থায় আসতে চায় । দেখা যায়, বেশী উষ্ণতার বস্তু থেকে তাপ বর্জিত হয় এবং কম উষ্ণতার বস্তু দ্বারা ঐ বর্জিত তাপ গৃহীত হয় ।

অর্থাৎ, এক্ষেত্রে বর্জিত তাপ = গৃহীত তাপ

এইটি হল ক্যালোরিমিতির মূলনীতি

আমরা জানি,

বস্তু দ্বারা গৃহীত বা বর্জিত তাপের পরিমান;

H = m.s.t ক্যালোরি

অর্থাৎ , গৃহীত বা বর্জিত তাপ = বস্তুর ভর x আপেক্ষিক তাপ x উষ্ণতার পার্থক্য

ধরি, দুটি বস্তু A এবং B আছে – এখন A বস্তুর উষ্ণতা > B বস্তুর উষ্ণতা ।

এমন অবস্থায় দুটি বস্তুকে পরস্পরের সংস্পর্শে আনলে বেশী উষ্ণতার A বস্তুটি তাপ বর্জন করবে এবং কম উষ্ণতারB বস্তুটি সেই তাপ গ্রহণ করবে ।

ফলে ধীরে ধীরে A বস্তুটির উষ্ণতা কমবে এবং B বস্তুটির উষ্ণতা বাড়বে ।

যতক্ষন পর্যন্ত A ও B বস্তুদুটির উষ্ণতা সমান হবে, ততক্ষণ এই উষ্ণতা বর্জন ও গ্রহণ প্রক্রিয়াটি চলতে থাকবে ।

যদি বাইরে থেকে কোন তাপ না আসে এবং বাইরে কোন তাপ বেরিয়ে না যায়, তবে A -এর দ্বারা বর্জিত তাপ = B -এর দ্বারা গৃহীত তাপ সমান হবে

এখন , ধরি,

A -এর ভর = m1
A -এর আপেক্ষিক তাপ = s1
A -এর প্রাথমিক উষ্ণতা = t1

B -এর ভর = m2
B -এর আপেক্ষিক তাপ = s2
B -এর প্রাথমিক উষ্ণতা = t2

A ও B পরস্পরের সংস্পর্শে আসার পর অন্তিম উষ্ণতা হয় = t

সুতরাং ;

A -এর দ্বারা বর্জিত তাপ
= ভর x আপেক্ষিক তাপ x উষ্ণতার পার্থক্য
= m1 x s1 x (t1-t )

B -এর দ্বারা গৃহীত তাপ =
= ভর x আপেক্ষিক তাপ x উষ্ণতার পার্থক্য
m2 x s2 x (t-t2)

এখন; A -এর দ্বারা বর্জিত তাপ = B -এর দ্বারা গৃহীত তাপ

=> m1 x s1 x (t1-t) = m2 x s2 x (t-t2)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *